Monday
12.18.2017
6:18 AM
Welcome Guest
RSS
 
My site
Main Sign Up Login
বই »
Site menu

Statistics

Total online: 1
Guests: 1
Users: 0

Main » 2014 » July » 6 » সারা পৃথিবীতে একই সময়ে নামাজের ওয়াক্ত হয়না তাহলে একই দিনে রমজান মাস শুরু হবে কিভাবে?
11:31 AM
সারা পৃথিবীতে একই সময়ে নামাজের ওয়াক্ত হয়না তাহলে একই দিনে রমজান মাস শুরু হবে কিভাবে?
 

সারা পৃথিবীতে একই সময়ে নামাজের ওয়াক্ত হয়না তাহলে একই দিনে রমজান মাস শুরু হবে কিভাবে?

 

এই প্রশ্নে দুটি দিক রয়েছে।

(১) “একই সময়ে” আর “একই দিনে” এর তুলনা করা হয়েছে।

(২) নামাজের ওয়াক্তের সাথে রমজান মাস শুরুর তুলনা করা হয়েছে

নিম্নে এ দুইটি বিষয় বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

 

একই সময়ে আর একই দিনে কথাটির পার্থক্য

 

এখানে “একই সময়” আর “একই দিনে” কথাটির পার্থক্য বুঝতে হবে। “একই সময়” অর্থ একইসেকেন্ড, মিনিট, ঘন্টা । আর “একই দিনে” অর্থ “একই বারে” যেমন শনিবার, রবিবার, সোমবার। আমরা কখনোই বলিনি সারা পৃথিবীতে রোজা “একই সময়ে” রাখতে হবে । আমরা বলেছি সারা পৃথিবীতে রোজা “একই দিনে” রাখতে হবে।

 

সারা পৃথিবীতে নামাজ যেমন “একই সময়ে” (সেকেন্ড, মিনিট, ঘন্টা) পড়া যায়না, সারা পৃথিবীতে রোজাও তেমনি “একই সময়ে” রাখা যাবে না।

 

কিন্তু সারা পৃথিবীতে নামাজ “একই দিনে” পড়তে হয়। যেমন জুম্মার নামাজ সারা পৃথিবীতে একই দিনে (শুক্রবারে) পড়তে হয়। ঠিক তেমনিভাবে সারা পৃথিবীতে রোজা “একই দিনে” রাখতে হবে।

 

 

 

 

সারা পৃথিবীতে

একই সময়ে

নামাজ পড়া যায়না

সারা পৃথিবীতে

একই সময়ে

রোজা রাখা যায়না বা সাহরী করা যায়না

সারা পৃথিবীতে

একই সময়ে

ইফতার করা যায়না

 

 

কিন্তু

 

 

 

সারা পৃথিবীতে

একই দিনে

নামাজ পড়তে হয় যেমন জুম্মার নামাজ শুক্রবারে পড়তে হয়

সারা পৃথিবীতে

একই দিনে

রোজা রাখতে হয়

সারা পৃথিবীতে

একই দিনে

ঈদ করতে হয়

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সারা পৃথিবীতে জুম্মার নামাজের ওয়াক্ত যেমন একই সময়ে হয়না, সারা পৃথিবীতে ঈদের নামাজের ওয়াক্তও একই সময়ে হয়না।

 

সারা পৃথিবীতে জুম্মার নামাজের ওয়াক্তের বা সময়ের পার্থক্য বজায় রেখেই জুম্মার নামাজ যেমন একই দিনে আদায় করতে হয় তেমনি সারা পৃথিবীতে ঈদের নামাজের ওয়াক্তের পার্থক্য বজায় রেখেই ঈদের নামাজ ও একই দিনে বা বারে (যেমন শুক্র শনি রবি -----বৃহ:) আদায় করতে হবে।

 

 

নামাজের ওয়াক্তের সাথে রমজান মাস শুরুর তুলনা সঠিক নয়

 

নামাজের ওয়াক্ত, সাহরী এবং ইফতার সূর্যের সাথে সম্পর্কিত, চাঁদের সাথে নয়। যেমন ইফতার করতে হয় সূর্য ডোবার পর, চাঁদ ডোবার পর নয়। একইভাবে মাগরিব পড়তে হয় সূর্য ডোবার পর, চাঁদ ডোবার পর নয়। জুম্মার ওয়াক্ত যেমন সূর্য অনুযায়ী হয় ঈদের নামাজের ওয়াক্তও তেমনি সূর্য অনুযায়ী হয়। সাহরী, ইফতার ও নামাজের ওয়াক্ত চাঁদ অনুযায়ী হয়না, চাঁদের সাথে এগুলির আদৌ কোনো সম্পর্ক নেই। সুতরাং সাহরী, ইফতার ও নামাজের ওয়াক্ত হয় সূর্য অনুযায়ী।

 

কিন্তু প্রতি আরবী মাসের প্রথম তারিখ নির্ধারিত হয় চাঁদ অনুযায়ী। রমজান মাসের প্রথম তারিখ নির্ধারণ সূর্য উঠার দ্বারা হয় না বরং রমজানের চাঁদ দেখার দ্বারা হয়। তেমনি শাওয়াল মাসের প্রথম তারিখ বা ঈদুল ফিতরের তারিখ নির্ধারণ ও সূর্য উঠার দ্বারা হয়না বরং ঈদুল ফিতরের চাঁদ দেখার দ্বারা হয়। রমজান মাস কবে থেকে শুরু হবে তার সাথে সূর্যের কোনো সম্পর্ক নেই। সুতরাং রমজান মাস শুরু হওয়া চাঁদের সাথে সম্পর্কিত, ঈদ হওয়াটাও চাঁদের সাথে সম্পর্কিত ।

 

কাজেই সূর্যের সাথে সম্পর্কিত নামাজের ওয়াক্ত আর চাঁদের সাথে সম্পর্কিত রমজান মাস শুরু হওয়া এই দুইটির তুলনা যুক্তিযুক্ত নয়। সূর্য ও চাঁদের হিসাব আলাদা

 

Views: 240 | Added by: Sabuz | Tags: একই সময়ে আর একই দিনে কথাটির পার্থক্, Global Moon Sighting, ঐক্য, নামাজের ওয়াক্ত, একই দিনে রোযা একইদিনে ঈদ, Moon sighting, রোজা, সূর্য, চাঁদ, রমজান | Rating: 0.0/0
Total comments: 0
avatar
Login form

Search

Calendar
«  July 2014  »
SuMoTuWeThFrSa
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031

Entries archive

Site friends
  • Create a free website
  • uCoz Community
  • uCoz Textbook
  • Video Tutorials
  • Official Templates Store
  • Best Websites Examples